শনিবার ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৩রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   শনিবার ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গাপালগঞ্জে বিস্তৃর্ণ বিলে (ডাঙায়) অবৈধভাবে বানা ও নেট দিয়ে মাছ চাষে দিশেহারা ৫ গ্রামের মৎস্যজীবী ও কৃষিজীবীরা
প্রকাশ: ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:০৬ পূর্বাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

গাপালগঞ্জে বিস্তৃর্ণ বিলে (ডাঙায়) অবৈধভাবে বানা ও নেট দিয়ে মাছ চাষে দিশেহারা ৫ গ্রামের মৎস্যজীবী ও কৃষিজীবীরা

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের উন্মুক্ত জলাশয়সহ একটি বিলের (ডাঙার) বিস্তৃর্ণ এলাকাজুড়ে অবৈধভাবে বানা (পাটা) (বাঁশের তৈরি বেড়া) ও নেট দিয়ে ঘিরে মাছ চাষ করছেন প্রভাবশালীরা। দীর্ঘ ৮ বছর ধরে এ অবস্থা চলার কারণে আশপাশের পাঁচ গ্রামের গরিব মৎস্যজীবী ও কৃষিজীবীরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এসব অসহায় পরিবারগুলো বর্ষা মৌসুমের প্রায় ৬ মাস বিল থেকে শাপলা, মাছ ও শাক-সবজিসহ বিভিন্ন ধরণের প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। এখন জলেও নামতে পারেন না এসব এলাকার জনসাধারণ।
টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ৫নং ডুমরিয়া ইউনিয়নের শালুখা মৌজার এ বিলের চারপাশে রয়েছে বড়ডুমরিয়া, ভৈরবনগর, কাঠিগ্রাম, সালুখা ও ভেন্নাবাড়ি গ্রাম। গ্রামগুলোয় শতাধিক কার্ডধারী মৎস্যজীবীসহ কয়েক শ’ অসহায় কৃষক পরিবারের বাস। বিশাল এই বিলের মধ্যে রয়েছে ‘ছুচখালি’ ও ‘লড়া’ নামে দু’টি বড় খাল ও তিনটি শাখা খাল। রয়েছে ব্যক্তিমালিকানাধীন জমি ও মাছের ঘের।

বর্ষা মৌসুমে এসব পরিবার জীবিকা-নির্বাহ করে এই বিলের মাছ ও শাপলা বিক্রি করে। গবাদি পশু ও হাঁসের খাবারসহ নানা প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণ করে এখান থেকে। শুকনো মৌসুমে এসব জমি থেকে মাত্র একটি ফসল পান কৃষকেরা। এ নিয়েই তাদের জীবন-জীবিকা চলে। কিন্তু এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি বিগত ৮ বছর ধরে এই বিলে প্রায় ৫ শ’ একর এলাকাজুড়ে বানা ও নেট দিয়ে ঘিরে মাছ চাষ করছেন। প্রতিটি খালের মুখে বানা দিয়ে আটকে রেখেছেন। এখন এলাকার গরীব মৎস্যজীবী ও সাধারণ মানুষ কেউ আর মৎস্য শিকার করতে পারেন না। গবাদি পশু ও হাঁসের খাবারসহ অন্য কোন প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণে ডাঙায় নামতে পারেন না। অনেকে নিজের জমিতেও নামতে পারেন না। এছাড়া শুকনো মৌসুমে সব পানি ও মাছ যখন খালগুলোতে নেমে যায়; তখন খালগুলোও আটকে রাখে। ফলে কৃষক জমিতে সেচ দিতে পারেন না বিধায় ফসলের ফলন কমে যাচ্ছে। বানা দিয়ে আটকে রাখার কারণে পানির প্রবাহ বন্ধ হয়ে খালগুলো ক্রমেই ভরাট হয়ে যাচ্ছে এবং প্রাকৃতিক মাছেরও বিলুপ্তি ঘটছে। এসবের প্রতিবাদ করায় ভুক্তভোগীদের অনেককে মিথ্যা মামলাসহ জীবন নাশেরও হুমকি দেয়া হয়েছে।
সম্প্রতি এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে। বিষয়টি জেলা প্রশাসক তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন।
শিগ্গিরই বিলটির খালসহ দখলমুক্ত হবে বানার ঘের এমনটিই প্রত্যাশা এলাকার সাধারণ মানুষের।

 




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

পুরোন সংবাদ খুজুন
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০  

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com

Design & Developed by
  চলতি মাসেই উদ্বোধন লেবুখালী পায়রা সেতু পরিদর্শনে সড়ক সচিব   ফুলবাড়ীতে আদিবাসী ও দলিতদের বিভিন্ন ইস্যুতে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়   ভাঙ্গুড়ায় স্কুলছাত্রকে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা   বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে শ্রমিক নিয়োগের দাবীতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন   করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৫ জন, নতুন আক্রান্ত ১,১৯০ জন   দরজায় চিরকুটসহ টাকা রেখে ক্ষমা চাইলেন অজানা ব্যক্তি   শিগগিরই ফাইজারের টিকা পাবে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সের শিক্ষার্থীরা   দেশ ও দেশের বাইরে মুক্তি পেতে যাচ্ছে আরিফিন শুভর ‘মিশন এক্সট্রিম’   দেশ ও দেশের বাইরে মুক্তি পেতে যাচ্ছে আরিফিন শুভর ‘মিশন এক্সট্রিম’   সিনোফার্মের আরও ৫০ লাখ টিকা এলো ঢাকায়   হাইতিসহ অন্যান্য দেশের ১০ হাজার শরণার্থী ভিড় জমাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্তে   হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে   শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে, বরিশালে (মাউশি) অধিদপ্তরের মহাপরিচালক   ‘নিউজিল্যান্ড শুধু পাকিস্তান ক্রিকেটকে হত্যা করেছে’: শোয়েব আখতার   শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে কোনো ফি লাগবে না : শিক্ষামন্ত্রী   বিশ্ব নেতাদের কাছে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তাব   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষে শুরু হচ্ছে ‘জয়তু শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক গ্রান্ড মাস্টারস দাবা’   মহান শিক্ষা দিবস আজ   ‘আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রির পরিকল্পনা ছিল ইভ্যালিকে’   ইভ্যালির সিইও রাসেল ও তার স্ত্রী ৩ দিনের রিমান্ডে
error: কপি করা থেকে বিরত থাকুন !!