বুধবার ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   বুধবার ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় ব্যারিস্টার রফিক
প্রকাশ: ২৪ অক্টোবর, ২০২০, ৫:৩০ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় ব্যারিস্টার রফিক

জানাজা শেষে প্রবীণ আইনজীবী ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মরদেহ দাফন করা হয়েছে বনানী কবরস্থানে।

আজ শনিবার (২৪ অক্টোবর) বাদ জোহর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে জানাজা শেষে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মরদেহ নেওয়া হয় তাঁর দীর্ঘদিনের কর্মস্থল সুপ্রিম কোর্টে। সেখানে তাঁর তৃতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে প্রবীণ এই আইনজীবীর মরদেহ নেওয়া হয় বনানী কবরস্থানে। সেখানেই দুপুর তিনটার দিকে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন এই প্রখ্যাত আইনজীবী।

এর আগে রাজধানীর আদ-দ্বীন হাসপাতাল প্রাঙ্গণে আজ শনিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয় ব্যারিস্টার রফিকের। সেখানে জানাজা পড়ান আদ-দ্বীন হাসপাতাল জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ সাইদুল ইসলাম। জানাজা শেষে পল্টনে অবস্থিত নিজ বাসায় নেওয়া হয় এ আইনজীবীর মরদেহ।

সূত্র জানায়, পল্টনের বাড়িতে বেশ কিছুক্ষণ রাখা হয় ব্যারিস্টার রফিকের মরদেহ। এর পর দ্বিতীয় জানাজার জন্য নেওয়া হয় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে।

আজ শনিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টায় রাজধানীর আদ-দ্বীন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক।

যুক্তরাজ্য থেকে ব্যারিস্টারি পাসের পর ১৯৬৫ সালে তৎকালীন পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী হিসেবে যোগ দেন ব্যারিস্টার রফিক। সেদিনের পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টই আজকের বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট।

দেশের প্রথিতযশা আইনজীবী এবং আদ-দ্বীন হাসপাতালের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার রফিক-উল হক অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ১৫ অক্টোবর সন্ধ্যায় তাঁকে ওই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর কিছুটা সুস্থবোধ করলে গত ১৭ অক্টোবর সকালে পল্টনের বাসায় ফিরে যান তিনি। তবে ওই দিনই দুপুরের পর তাঁকে ফের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরদিন ১৮ অক্টোবর দিবাগত রাত ১২টার পর তাঁকে লাইফ সাপোর্টে নেওয়া হয়। ১৯ অক্টোবর তাঁর করোনা পরীক্ষা করে রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। তখন থেকে অবস্থা সংকটাপন্ন ছিল এই প্রবীণ আইনজীবীর।

ব্যারিস্টার রফিক-উল হক ১৯৩৫ সালের ২ নভেম্বর কলকাতার সুবর্ণপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৯০ সালের ৭ এপ্রিল থেকে ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল ছিলেন। ২০১৭ সালে বাম পায়ের হাঁটুতে অস্ত্রোপচারের পর থেকে তাঁর চলাফেরা সীমিত হয়ে পড়ে। এ কারণে তিনি স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারেন না। ৮৫ বছর বয়সী খ্যাতিমান এই মানুষটি বিছানায় শুয়েই সময় পার করছিলেন।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

পুরোন সংবাদ খুজুন
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০  

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com

Design & Developed by
  সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্য নিতে গেলে সাংবাদিককে পিটিয়ে আহত   বিনামূল্যে আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভায়া টেষ্ট পরীক্ষার উদ্বোধন   ২০ কোটি টাকার সম্পদ আত্মসাতের মামলা মামুনুল সহ ৪৩ জনের বিরুদ্ধে   গণমাধ্যমকর্মীদের ৪৫ শতাংশ মহার্ঘভাতা আইন অনুমোদনের জন্য চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে:প্রধানমন্ত্রী   বক্তা আবু ত্ব-হা আদনানের নিখোঁজের বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে দেখছি:স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   খাদ্য সঙ্কটে উত্তর কোরিয়া   বোরো উৎপাদনে নতুন রেকর্ড   চলে যাচ্ছে বয়স, হতাশ চাকরিপ্রার্থী তরুণরা   ৩ লাখ ৮০ হাজার পদ শূন্য রয়েছে সরকারি চাকরিতে   দেশের উত্তরাঞ্চলে হাসপাতালে তীব্র ডাক্তার সংকট   ফের গাজায় হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল   কোক নয়, পানি খান: রোনালদো   আগামী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত থাকছেন নান্নু-বাশার প্যানেল   টেস্ট ও ওয়ানডে দুই ফরম্যাটের চুক্তিতেই ফিরছেন সাকিব   কাউখালী উপজেলা শিক্ষক কর্মচারী ইউনিয়ন এর সাধারণ সভা ও ত্রিবার্ষিক নির্বাচন-২০২১ অনুষ্ঠিত।   উহানের ল্যাবে জীবিত বাদুড়,নতুন করে প্রশ্নের মুখে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা   বরিশালে ইএসডিপি এর উদ্যোক্তা সৃষ্টি প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের সনদ বিতরণ।   টুঙ্গিবাড়িয়া ইউনিয়নে অবহেলিত ১ নং ওয়ার্ড বাসির সেবা করতে চান-রিপন কাজী   নলছিটির মগড় ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিন হাওলাদারের জয়জয়কার   ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে অবৈধবাজার ও স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান
error: কপি করা থেকে বিরত থাকুন !!