বৃহস্পতিবার ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৬ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   বৃহস্পতিবার ২২শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

রাণীনগরে শরিয়া গ্রামে জমি জাইগা লেখে নিয়ে রশি দিয়ে বেঁধে রেখেছে পিতা কে সন্তানেরা!
প্রকাশ: ১৩ অক্টোবর, ২০২০, ১২:১০ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

রাণীনগরে শরিয়া গ্রামে জমি জাইগা লেখে নিয়ে রশি দিয়ে বেঁধে রেখেছে পিতা কে সন্তানেরা!

মোঃ ফিরোজ হোসাইন
নওগাঁ প্রতিনিধি

নওগাঁর রাণীনগর ৭নং একডালা ইউনিয়নের শরিয়া গ্রামের মোঃ মজিবর ফকিরের ছেলেরা তাহার সব সম্পত্তি লিখে নিয়ে এখন পাগল বানিয়ে পায়ে রশি দিয়ে বেঁধে রেখেছে। গ্রামের সবায় তাহাকে মজি ফকির হিসেবেই চিনে।প্রয়োজন মতো খাবার, চিকিৎসাসহ অন্যান্য সেবা-যত্ন না পাওয়ায় এখন মজিবর ফকির এখন অনেকটাই মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে। লোক দেখলেই বলে খাবার দে হামাক খাবার দে। খোলা কুঁড়ে ঘরের পাশে টয়লেট সংলগ্ন একটি চকিতে এক পায়ে রশি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে মজিবরকে।সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, শরিয়া গ্রামের মৃত-বয়তুল্লাহ ফকিরের ছেলে মজিবর ফকির। বয়স এখন ৭৮ বছর। ২ বছর আগেও সে স্বাভাবিক ছিলেন। তখন ছেলেদের মাঝে কিছু সম্পত্তি লিখে দেন। এরপর কৌশল করে বড় ছেলে আব্দুল খালেক বসতবাড়িসহ অবশিষ্ট সম্পত্তির অধিকাংশয় সম্পত্তি লিখে নেওয়ার পর থেকে কিছুটা মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেন।রাস্তায় বের হয়ে অস্বাভাবিক আচরন করা, দোকানে গিয়ে বিভিন্ন খাবার জিনিসপত্র খাওয়াসহ নানা রকমের পাগলামী আচরন শুরু করেন মজিবর। তার অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে কোন রকমের চিকিৎসা না করেই প্রায় ১ বছর যাবত মজিবরের পায়ে রশি লাগিয়ে একটি নোংরা খোলা কুঁড়ে ঘরে বেধে রেখেছে তার সন্তানরা।মজিবরের ছোট স্ত্রী ও আশেপাশের লোকের দাবী সম্পত্তি লিখে নেওয়া ও দীর্ঘদিন যাবত প্রয়োজন মাফিক খাবার, সুচিকিৎসা, সেবা-যত্ন না পাওয়ায় ও রশি দিয়ে বেঁধে রাখার কারণে দিন দিন মজিবর মানসিক ভাবে ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ছেন। বড় ছেলে ৩ বেলা যে পরিমাণ খাবার দেয় তাতে মজিবরের ক্ষুধা পূরণ হয় না। এর কারণে যে মানুষই তার কাছে যায় মজিবর তার কাছে খাবার চায়।অভাবের সংসার হওয়ার কারণে মজিবরের ছোট স্ত্রীকে অধিকাংশ সময় মেয়েদের বাড়িতে থাকতে হয়। তখন মজিবরকে দেখারও কেউ থাকে না। ওই কুড়ে ঘরেই তাকে মশার কামড়ে অবহেলা আর অযত্নে পড়ে থাকতে হয়। অসহায় ভাবে পেট ভরে খেতে না পেয়ে অত্যন্ত মানবেতর জীবন-যাপন করছেন বৃদ্ধ মজিবর ফকির।স্থানীয়রা জানান হয়তো বা সুচিকিৎসা, ভালো সেবা যত্ম, পর্যাপ্ত পরিমাণ খাবার ও মুক্ত পরিবেশ পেলে বৃদ্ধ মজিবর সুস্থ্য হয়ে উঠতে পারেন। মজিবরকে একবার খাবার দিলে আবার খাবার চায়। কিন্তু সন্তানরা মজিবরের সম্পত্তি লিখে নিয়ে এখন আর ভালো ভাবে দেখে না।অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়েই নাকি সন্তানেরা পিতাকে রশি দিয়ে বেঁধে রেখেছে। বিষয়টি খুবই অমানবিক।মজিবরের বড় ছেলে আব্দুল খালেক বলেন স্বজ্ঞান থাকতেই বাবা আমাদেরকে সম্পত্তি লিখে দিয়েছেন। আমি বাবাকে ৩ বেলা খাবার দিই। তবে তার কোন চিকিৎসা এখন পর্যন্ত করা হয়নি। অস্বাভাবিক আচরন করার কারণে তার পায়ে রশি দিয়ে বেঁধে রেখেছি।মজিবরের দ্বিতীয় স্ত্রী ফরিদা বেগম বলেন বড় ছেলে বসতবাড়িসহ বেশি সম্পত্তি লিখে নেয়ার পর থেকে আমার স্বামীর মাথার সমস্যা দেখা দেয়। অভাবের সংসার তাই আমাকে মেয়ে-জামাইয়ের উপর নির্ভর হয়ে থাকতে হয়। আমি যতটুকু পারি করার চেষ্টা করি। আর টাকা পয়সার অভাবে চিকিৎসা করা হয়নি। চিকিৎসা, ভালো সেবা-যত্ন, পর্যাপ্ত খাবার পেলে হয়তো আমার স্বামী ভালোও হতে পারেন।একডালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল লতিফ বলেন বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি। আমি খোজখবর নিয়ে তার জন্য স্থানীয় সরকারের পক্ষ থেকে যদি কোন কিছু করার সুযোগ থাকে অবশ্যই তা করবো।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল মামুন বলেন ইতিপূর্বেও আমরা এরকম একাধিক ব্যক্তিকে সরকারি সহায়তা দিয়েছি। মজিবর ফকিরের খোঁজখবর নিয়ে দ্রুত তার জন্য কিছু করার প্রদক্ষেপ গ্রহণ করবো। এছাড়া সরকারের পক্ষ থেকে তার সুচিকিৎসার ব্যবস্থাও করার চেষ্টা করবো।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com

Design & Developed by
  বরিশালে সম্মিলিত সাংবাদিক পরিষদ ( এস এস পি)’র সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি গঠন।   জামালপুরের মেলান্দহে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা   উজিরপুরে স্বাস্থ্যবিধি ও নিয়ম মেনে পূজা উদযাপনের আহ্বান, চেয়ারম্যান সরোয়ার   জয়পুরহাটে প্রতিটি পূজা মণ্ডপে মাস্ক ও সচেতনতামূলক ব্যানার বিতরণ   বরগুনায় জেলা প্রশাসনের পুকুরে মরে গেছে ২৫ লাখ টাকার মাছ ঠিকাদারের দূষিত পানিতে নিঃস্ব ইজারাদার   বরিশালের পলাশপুর কলোনীতে মহানগর গোয়েন্দা বিএমপি’র ব্লক রেইড।   বড়াইগ্রামে শিশু ও নারী উন্নয়নে সচেতনতামূলক যোগাযোগ কার্যক্রম শীর্ষক কর্মশালা   নওগাঁর আত্রাইয়ে পুজার সকল প্রস্তুুতি সম্পন্ন,কাল মহাষষ্ঠীর মাধ্যমে শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু   স্বতন্ত্র প্রার্থীর সাথে নৌকার পরাজয়, উৎসবমুখর পরিবেশে সম্পন্ন হলো মহিপুর ইউপি নির্বাচন।।   ক্যাশ আউট খরচ নিয়ে বিভ্রান্তিকর প্রচারণা নগদ’র, উপেক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা।   বরিশাল টাইলস এন্ড স্যানিটারী বিজনেস এসোসিয়েশন’র মতবিনিময় সভা।   নবাবগঞ্জে স্বেচ্ছায় রক্তদানে উদ্বুদ্ধকরণ ফ্রী ক্যাম্পেইন   শেরপুরে ছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ – শিক্ষকের বিরুদ্ধে গৃহবধুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ   রাজশাহীতে পুলিশ পরিচয়ে তিন বছর ধরে অর্থ আদায়, প্রতারক আটক   কলাপাড়ায় গলায় ফাঁস দিয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রীর আত্মহত্যা।।   ১১ দফা দাবীতে দুই বছরে ৪ দফায় কর্মবিরতি : প্রভাব পড়েছে মোংলা বন্দরে   বিভিন্ন পূজা মন্ডপে কেসিসির অনুদান প্রদান   নাটোরের সিংড়ায় চালককে হত্যা করে অটো ভ্যান ছিনতাই   সারাবিশ্বে করোনয় মৃতের সংখ্যা এগারো লাখ ছাড়িয়ে ।   “সকল কাজে অংশ নিব নিজের অধিকার বুঝে নিব ।”