বুধবার ১৫ই জুলাই, ২০২০ ইং ৩১শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   বুধবার ১৫ই জুলাই, ২০২০ ইং


বিমানবাহিনীর মেধাবী ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট রুম্মন তাহমিদ চৌধুরী
প্রকাশ: ২৯ জুন, ২০২০, ২:০৩ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

বিমানবাহিনীর মেধাবী ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট রুম্মন তাহমিদ চৌধুরী
মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান | ঢাকা |
বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর অত্যন্ত দক্ষ ও প্রচন্ড মেধাবী যুদ্ধবিমানের পাইলট হিসেবে পরিচিত ছিলেন ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট রুম্মন তাহমিদ চৌধুরি । ছোটবেলা থেকেই তিনি যুদ্ধবিমানের পাইলট হওয়ার নেশা চেপে বসে তার মাথায় । শঙ্খ নদীর তীরে শালিকের উড়ে যাওয়া কিংবা আকাশে উড়ে যাওয়া যুদ্ধবিমানের সাথে দৌড়ে পাল্লা দিতেন । যুদ্ধবিমানের পাইলট হিসেবে তিনি তার জীবন কে ভীষন উপভোগ করতেন ।
তিনি তার ব্যাচের সবচেয়ে সেরা ছাত্র ছিলেন তেমনি তার অমায়িক ব্যবহার সকল কে মুগ্ধ করতো । নির্ভেজাল ও নিরঅংহকারী তাহমিদের মুখে হাসি লেগেই থাকতো । কোর্সমেটরা এবং বিমানবাহিনীর কর্মকর্তারা প্রায়েই তার কাছে এসে বলতো ইজেক্ট করা যেন ভালভাবে শিখে নেয় । তেমনি ইজেকশন কোর্স করতে গিয়ে কিংবা ফ্লাইট সর্ম্পকে পড়াশোনা করতে গিয়ে ইজেকশনের ব্যাপারটা তাকে ভীষন বিরক্ত করতো । যখনেই ইজেকশনের কথা আসতো তখনেই একটা হাসি দিয়ে বলতো ” যাই ঘটে যাক আমি আমার বিমান কখনো ত্যাগ করবো না ” ।
ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট রুম্মন তাহমিদের ইজেকশনের ব্যাপারে একটা যুক্তি সবাই কে বলতো যে জনগনের টাকা তে কেনা এই যুদ্ধবিমান ইজেক্ট করে বেরিয়ে এসে এভাবে টাকা নষ্ট করার মানে নেই । একটা যুদ্ধবিমান টিকিয়ে রাখাটা তার কাছে অনেক দামী ছিল তাই ইজেক্ট নিয়ে কারো কথা তে কান দিতেন না । বুঝতেই পারছেন তিনি কতটা প্রফেশনাল ও তার মধ্যে দেশপ্রেম ও সততা ছিল । তিনি সবসময়ে F-7 যুদ্ধবিমান চালাতেন । তার যুদ্ধবিমান নিয়ে অসাধারন ম্যানুভ্যারেটি সকল কে মুগ্ধ করতো । তার দক্ষতা নিয়ে কারোই কোন সন্দেহ ছিল না । দিনটা ছিল ২০১৫ সালের ২৯ জুন । প্রতিবারের মত রুটিন ফ্লাইটের আগে মা এর সাথে কথা বলেছিলেন কিন্তু তার বাবা ঘুমিয়ে থাকাতে তার সাথে আর কথা বলা হয়নি । বোনের সাথে শেষ কথা ছিল আমার ফ্লাইট আছে আমি একা যাচ্ছি । এরপর ১১টা ৩০ মিনিটে বঙ্গোপসাগরে খুব নিচু দিয়ে এসে সমুদ্রে F-7 যুদ্ধবিমান নিয়ে বিধ্বস্ত হয় । তখনেই এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলার বিমানবাহিনীর প্রধান কে জানান Sir We have lost our a beautiful bird . আর এর মধ্যে দিয়ে চিরতরের জন্য হারিয়ে যায় অত্যান্ত ভদ্র , দক্ষ ও দেশপ্রেমিক পাইলট রুম্মন তাহমিদ । পরের ৩ দিন পর্যন্ত সমুদ্রে নৌবাহিনী , কোস্টগার্ড ও বিমানবাহিনী একযোগে তল্লাশি চালিয়েও তার মৃতদেহ পায়নি । ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট রুম্মন তাহমিদ চৌধুরি হারিয়ে গেছে অথৈ সাগরে কিন্তু তিনি কখনো আমাদের হৃদয়ের মাঝখান থেকে হারিয়ে যাবেন না । তিনি চিরকাল আমাদের মনে বিনম্র শ্রদ্ধা ও ভালভাসার সাথে বেচেঁ থাকবে । তার মত এত অত্যন্ত দক্ষ ও মেধাবী পাইলট হারানোটা বাংলাদেশের জন্য ছিল বিশাল এক ক্ষতি । হয়তো এই ক্ষতি অপূরনীয়।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

Design & Developed by
  ১৪ জুলাই বরিশাল নতুন করে ৩৪ জন করানো শনাক্ত হয়েছে   গাজীপুর সিটিতে লকডাউনের সময় বাড়ানো প্রয়োজন- মেয়র   নেত্রকোনায় বন্যার পানিতে ভাসছে হাজারো পরিবার   বাঘায় পদ্মার ভাঙ্গনে মাথা গোঁজার ঠাঁই হারিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ে ছুটছে মানুষ   নবাবগঞ্জ আশুড়ার বিল সংরক্ষন ও অবকাঠামো উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন   সুন্দরবন নেভিগেশনের পক্ষ থেকে বরিশাল মেডিকেলে করোনা রোগীদের জন্য হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানুলা প্রদান।   সংবাদ প্রকাশের পর লালপুরে বর্ষার পানি নিষ্কাষন ব্যবস্থা গ্রহণ করলেন প্রশাসন   কলাপাড়ায় মাহেন্দ্র অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষ, আহত-১০   কলাপাড়ায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা ও মাস্ক বিতরন   স্বজনহীন ভিক্ষুক ফজরজান বিবি’র পাশে বিএমপি কমিশনার   শশুড়বাড়ীর রোষানলে কলাপাড়ায় সম্পত্তির সঠিক বুঝ চায় হোসনেয়ারা   রাজশাহী বিভাগে করোনায় আরো ৩ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২১৩   রাজশাহীতে পুলিশের অভিযানে আটক ৫   “দুর্বার কাণ্ডারী ইমার্জেন্সী ভেন্টিলেটর” তৈরি করল রুয়েট, খরচ হবে মাত্র ৩০-৩৫ হাজার টাকা   বরিশালে চোরাই মোবাইল সহ ৩ আসামী গ্রেফতার   বরিশালের উদ্বোধনের আগেই ব্রিজের সংযোগ সড়কে ধস   বরিশাল লেডিস ক্লাব ও সমাজসেবার পক্ষ থেকে মেয়ে শিশুদের মাঝে হিজাব এবং নতুন পোশাক বিতরণ   রাজশাহীতে যুবকের লাশ উদ্ধার   রাজশাহীতে ১ দিনে আরো ১০৬ জনের করোনা শনাক্ত   মন্ত্রীসভায় শেখ হাসিনা মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আইনের খসড়া অনুমোদন