সোমবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   সোমবার ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ


রোহিঙ্গা হত্যার স্বীকারোক্তি দিয়েছে মিয়ানমারের ২ সেনা |
প্রকাশ: ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:১৩ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

রোহিঙ্গা হত্যার স্বীকারোক্তি দিয়েছে মিয়ানমারের ২ সেনা |
জোবায়ের হাসান নাহীয়ান | ঢাকা |
মিয়ানামারের রাখাইনে ২০১৭ সালে সেনা অভিযানে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা হত্যার স্বীকারোক্তি দেওয়ার পর, মিয়ানমারের দুই সেনাকে নেদারল্যান্ডসের হেগে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার প্রকাশিত দুটি গণমাধ্যম ও একটি মানবাধিকার সংস্থার প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে রয়টার্স এ কথা জানায়। এ বছর মিয়ানমারে করা একটি ভিডিওতে ওই দুই সেনার বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে দ্য নিউইয়র্ক টাইমস, দ্য কানাডিয়ান ব্রডকাস্টিং করপোরেশন এবং মানবাধিকার সংস্থা ফর্টিফাই রাইটস জানায়, উত্তর রাখাইনে এই দুজন কয়েকজন মানুষকে হত্যা করে গণকবর দিয়েছে। এগুলো তারা ওই ভিডিওতে স্বীকার করেছে। রয়টার্স এখনও ওই ভিডিওগুলো দেখেনি এবং নিউইয়র্ক টাইমস এই দুই সেনা অপরাধের স্বীকারোক্তি কাকে দিয়েছে তা নিরপেক্ষসূত্রে নিশ্চিত করে বলতে পারেনি বলে জানিয়েছে। মিয়ানমার সরকার ও সে দেশের সামরিক মুখপাত্রদের কাছ থেকে এ বিষয়ে মতামত নেওয়ার চেষ্টা করেও তা সফল হয়নি বলে জানায় রয়টার্স। প্রতিবেদনে বলা হয়, রাখাইনে মিয়ানমার সেনাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধরত আরাকান বিদ্রোহী বাহিনীর হেফাজতে ছিল ওই দুই সেনা। সেখানে থাকা অবস্থায় তারা ওই স্বীকারোক্তি দেয়। পরে, দুজনকে নেদারল্যান্ডসের হেগে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) তাদের বিরুদ্ধে শুনানি হতে পারে কিংবা তাদের মামলার সাক্ষী করা হতে পারে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়। তবে, এই দুজন কীভাবে আরাকান বাহিনীর হাতে ধরা পড়ল, তারা কেন হত্যার কথা স্বীকার করলো কিংবা নেদারল্যান্ডসে তারা কীভাবে গেল , কার দায়িত্বে গেল সেসব নিশ্চিত হওয়া যায়নি। হেগে অবস্থিত আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতের হেফাজতে মিয়ানমারের ওই দুই সেনা এখন পর্যন্ত নেই বলে আদালতের এক মুখপাত্র জানান। ফাদি আল আবদুল্লাহ নামের ওই মুখপাত্র বলেন, ‘না। এই তথ্য সঠিক নয়। আমরা এখনও তাদের আইসিসির হেফাজতে পাইনি।’ আইসিসিতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী কানাডার আইনজীবী পায়াম আখভান বলেন, ‘মিয়ানমার সীমান্তের একটি নিরাপত্তা চৌকিতে দুই ব্যক্তি এসে বাংলাদেশ সরকারের কাছে তাদের জীবনের নিরাপত্তার চেয়ে আবেদন জানায়। ২০১৭ সালে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো গণহত্যা ও ধর্ষণের বিষয়ে তারা স্বীকারোক্তি দেয়।’ তিনি বলেন, ‘আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি যে এই দুই ব্যক্তি এখন আর বাংলাদেশে নেই।’ আরাকান বাহিনীর এক মুখপাত্র খাইন থু খা বলেন, ‘ওই দুজন মিয়ানমারের সেনাবাহিনী থেকে পালায়। তাদেরকে যুদ্ধবন্দী হিসেবে রাখা হয়নি।’ তবে, ওই দুই সেনা এখন কোথায় আছে সে সম্পর্কে তিনি আর কিছু বলেননি। তিনি বলেন যে তাদের বাহিনী মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থদের ‘ন্যায়বিচার’ দিতে ‘প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’। মিয়ানমার বারবার গণহত্যার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে যে ২০১৭ সালে সীমান্ত চৌকিতে পুলিশকে আক্রমণ করা রোহিঙ্গা জঙ্গিদের বিরুদ্ধে তারা সামরিক অভিযান চালিয়েছিল।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com
অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

Design & Developed by
  মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাকেরগঞ্জ উপজেলায় জেলা প্রশাসকের দিনভর কর্মসূচি।   মিয়ানমার সীমান্তে সেনা মোতায়েন, নিরাপত্তা পরিষদে বাংলাদেশের চিঠি   কলাপাড়ায় আনোয়ার সিমেন্ট রিটেইলারস মিট অনুষ্ঠিত হয়েছে   শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় আইন চূড়ান্ত অনুমোদন |   ৬ মাস পর খুলল তাজমহল   বর্তমানে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া সালমানের প্রথম আয় কত?   মাস্ক পরায় অনীহা : মার্কেট-শপিংমলে অ্যাকশনে যাচ্ছে সরকার   দ্বিতীয় ধাপে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা, প্রস্তুতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর   মাদরাসাপড়ুয়াদের জন্য ওয়াজ-বক্তৃতা প্রশিক্ষণ   বিশ্ববরেণ্য আলেমদের শোক, আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যু   আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে রেগে আগুন প্রীতি জিনতা   আমিও বহু অভিনেতার লালসার শিকার হয়েছি : কঙ্গনা   নৃত্যশিল্পী ইভান ৭ দিনের রিমান্ডে   স্বাস্থ্য-শিক্ষা ডিজির ড্রাইভারের শতকোটি টাকা, অফিসে এলাকায় সাম্রাজ্য!   ‘শেখ মুজিব, অ্যা নেশন’স ফাদার’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন প্রধানমন্ত্রী |   বরিশাল জেলখাল সংস্কারের কাজ চলছে।   কলাপাড়া উপজেলা যুবলীগের তৃণমূলের ভরসা শহিদুল ইসলাম।।   বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ডাঃ আয়নাল হক হত্যা মামলার রায়ে ২ জনের মৃত্যুদন্ড ও ১১ জনকে খালাস দিয়েছে আদালত   আত্রাইয়ে সাপের কামড়ে মোয়াজ্জেমের মৃত্যু   নওগাঁর বান্দাইখাড়া সিদ্ধসড়ির মোড় একটু চেষ্টা করিলে হতে পারে একটি পর্যটন কেন্দ্র