রবিবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   রবিবার ২০শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ


ছয় দফা দাবি ছিল বঙ্গবন্ধুর নিজস্ব চিন্তার ফসল | প্রধানমন্ত্রী
প্রকাশ: ২৬ আগস্ট, ২০২০, ১১:২৭ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

ছয় দফা দাবি ছিল বঙ্গবন্ধুর নিজস্ব চিন্তার ফসল | প্রধানমন্ত্রী
মোহাম্মদ মাহমুদুল হাসান | ঢাকা |
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ঐতিহাসিক ছয় দফা দাবিসমূহ ছিল জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নিজস্ব চিন্তার ফসল। ঐতিহাসিক এ বিষয় গঠনে অন্য কেউ জড়িত ছিল না, যা দেশকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছিল স্বাধীনতার দিকে। তিনি বলেন, ‘অনেকে ছয় দফা দাবি সম্পর্কে অনেক কিছু বলতে চান। কেউ কেউ বলেন যে, এটি অন্য কারও পরামর্শে হয়েছিল। কিন্তু আমি জানি যে এটি অবশ্যই তার (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান) নিজস্ব চিন্তাভাবনার ফসল ছিল।’ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির আয়োজনে বুধবার ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবসের কুইজ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি এই কর্মসূচিতে যোগ দেন। দেশের এই ঐতিহাসিক দাবির পটভূমি স্মরণ করে তিনি বলেন, ১৯৫৮ সালে বঙ্গবন্ধুকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল এবং ১৯৬৯ সালের ১৭ ডিসেম্বর তিনি মুক্তি পান। তখন রাজনীতি নিষিদ্ধ ছিল। বঙ্গবন্ধু ঢাকার বাইরে যেতে পারেননি। এ সময় তিনি আলফা বীমা সংস্থায় যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাজউদ্দীন আহমদও ওই সময় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন এবং মুক্তি পাওয়ার পরে তিনি তার কাজের জন্য নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় চলে যান। পরে বঙ্গবন্ধু নিজেই নারায়ণগঞ্জে গিয়ে তাজউদ্দীন আহমদকে ঢাকায় নিয়ে এসে আলফা বীমা সংস্থায় চাকরি দিয়েছিলেন। এছাড়া মোহাম্মদ হানিফকে বঙ্গবন্ধু আলফা বীমা সংস্থায় নিজের ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিলেন বলেও জানান তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু সব সময় চিন্তা করতেন, সেই চিন্তাভাবনাগুলো লিখে রাখতেন এবং ওই লেখাগুলো হানিফকে দিতেন টাইপ করার জন্য। এজন্য কেবল হানিফই এ (ছয় দফা দাবি) সম্পর্কে জানতেন কারণ তিনি সেটি টাইপ করেছিলেন, অন্যথায় এটি সম্পর্কে কেউ জানতো না।’ তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর চিন্তাভাবনা থেকে এই ছয় দফা দাবি বের হয় ১৯৬৫ সালে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যকার তিন সপ্তাহ ধরে চলা যুদ্ধের পর এবং তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমান বাংলাদেশ) তখন সম্পূর্ণরূপে প্রতিরক্ষাহীন হয়ে পড়েছিল। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ছয় দফা দাবি ঘোষণার পরিপ্রেক্ষিতে বঙ্গবন্ধু এবং আওয়ামী লীগের অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় নেতাদের গ্রেপ্তারের পরে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এই দাবিগুলোকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা আন্দোলন এবং এর প্রচারণা এগিয়ে নিতে মহান ভূমিকা পালন করেছিলেন। ‘বাংলাদেশের জন্য আমার মায়ের অবদানের কথা কল্পনাও করা যায় না। তিনি সবসময় জানতেন যে আমার বাবা কী চান এবং সে সম্পর্কে তিনি খুব সচেতন ছিলেন,’ যোগ করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা বন্ধ করে দেয়। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের বেশিরভাগ সদস্যকে নির্মমভাবে হত্যার বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এ হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে পরাজিত শক্তি দেশে আত্মপ্রকাশ করেছিল এবং তারা দেশের বিজয়কে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছিল। ‘আমি মনে করি এমন কোনো সুযোগ এখন আর নেই। ইতিহাস তার নিজের পথে ভ্রমণ করে, কেউ তা মুছে ফেলতে পারে না এবং এটি আজ প্রতিষ্ঠিত,’ যোগ করেন তিনি। জাতির পিতার দেখানো পথে অনুসরণ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন প্রধানমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু এবং ঐতিহাসিক ছয় দফা দাবির ওপর একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শিত হয়।




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com
অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

Design & Developed by
  বরিশালে পুনাক কার্যালয়ে দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ।   প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বরিশাল শেবাচিমে ৪ টি হাই ফ্লো নেজাল ক্যানোলা হস্তান্তর   বরিশালে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বিএমপি কর্তৃক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত   নাটোরে বড়াইগ্রামে মাদক বিক্রেতা রাজা গ্রেপ্তার   সম্মিলিত সাংবাদিক পরিষদ এসএসপির তৃতীয় বর্ষে পদার্পণ করায় কেক কাটা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত   মেহেন্দিগঞ্জে কৃষকদের মাঝে বীজ বিতরণ করলেন উত্তর জেলা কৃষক দল   মেহেন্দিগঞ্জে হাজী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগ দোয়া মিলাদ অনুষ্ঠিত   ভাঙ্গুড়ায় ১শত ইয়াবাসহ ইউপি সদস্যসহ আটক ২   বড়াইগ্রামে মারপিট করে মোটরসাইকেল ভাংচুরসহ নগদ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ   নওগাঁর আত্রাইয়ে আ’লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত   চট্টগ্রামে মুক্তিযোদ্ধার শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে ভোলার দৌলতখানে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ   ভোলায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে নৌ-বাহিনী   তালতলীতে ছাত্রদলের কমিটিকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করে ১১ নেতার পদত্যাগ মোঃ হাইরাজ তালতলী   পায়রা বন্দরের ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্থদের বসতঘর তালিকাভূক্তির দাবিতে মানববন্ধন।   নওগাঁর সাপাহারে হাটেরদিন করে ইউনিয়ন পরিষদে পুলিশী সেবা প্রদান   লাখো মুসল্লির সমাগমে আল্লামা শফীর জানাজা সম্পন্ন |   নওগাঁয় সেচ্ছাসেবী সংগঠন রূপসী নওগাঁর পরিচালনায় ‘ইত্যাদি ডট কমে’র যাত্রা শুরু   দু’এমপিসহ নেতৃবৃন্দকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী সাইফুল   মাদক থেকে তরুণ প্রজন্ম কে বাঁচতে ছাত্রলীগের ব্যতিক্রম আয়োজন   অবশেষে দেশে ঢুকল সাত ট্রাক ভারতীয় পেঁয়াজ