সোমবার ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   সোমবার ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ


খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রীধারী দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী এক দম্পতির করুন কাহিনী
প্রকাশ: ২৩ আগস্ট, ২০২০, ১১:২৭ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রীধারী দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী এক দম্পতির করুন কাহিনী

জিয়াউর রহমান বিশেষ প্রতিনিধি  আল্লাহর অশেষ রহমতে খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয় (সর্ব উচ্চ বিদ্যাপিঠ) থেকে একই সনে ডিগ্রীধারী দুই মেধাবী রফিকুল ইসলাম ও মীম নামে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী (একই সময়) এক দম্পতি । ভালোবেসে বিয়ে করা এই দম্পতির একজন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, অপরজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স-মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন। এক ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে তাদের সংসার। তবে উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হলেও কর্মসংস্থানের কোনও ব্যবস্থা না হওয়ায় কঠিন জীবন সংগ্রামের মুখে পড়েছেন তারা। রফিকুল ইসলাম নরসিংদী রায়পুরা উপজেলার পলাশতলী ইউনিয়নের ফুলদী গ্রামের নোয়াব আলী মোল্লার পাঁচ সন্তানের মধ্যে রফিকুল তৃতীয়। সে তিন বছর বয়সে টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হয়ে দৃষ্টি হারান। গাজীপুরের নীলের পাড়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৫ সালে এসএসসি, ২০০৭ সালে শহীদ এম মনসুর আলী কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। পরে ২০১১ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞানে অনার্স সম্পন্ন করেন। শাহিদা আফরোজ মীম পিতা আব্দুল আজিজ এর জন্ম চাঁদপুরের হাইমচরে। তাদের পাঁচ বোন ও এক ভাই। নদী ভাঙনে সব কিছু বিলীন হয়ে গেলে সন্তানদের নিয়ে চলে আসেন ঢাকায় তার বাবা। এ সুবাদে ঢাকার মিরপুরে শৈশব কাটে তার। মীমও তিন বছর দৃষ্টি হারান হামের কারণে। বয়স যখন ১১ বছর তখন বাবাকেও হারান। তারপরও থেমে থাকেননি তিনি। মিরপুর আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড গার্লস কলেজ থেকে ২০০৩ সালে এসএসসি, ২০০৫ সালে বেগম বদরুন্নেসা কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ২০১০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা বিভাগ থেকে অনার্স ও ২০১১ মাস্টার্স করেন। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালে এক সিনিয়র শিক্ষার্থীর স্ত্রীর মাধ্যমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী মীমের সঙ্গে যোগাযোগ হয় রফিকুলের। এরপর দুজনের পরিচয়, এক পর্যায়ে দৃষ্টিশক্তি না থাকায় একে অপরকে না দেখলেও প্রেম- ভালোবাসার টানে ২০১১ সালে বিয়ে করেন। ২০১৪ সালে তাদের ঘর আলো করে জন্ম নেয় ছেলে শামিউল ইসলাম সিয়াম। তার বয়স এখন ৬ বছর। পড়ছে সানবীম নামে একটি স্কুলের প্লে-গ্রুপে। ২০১৯ সালে জন্ম নেয় মেয়ে জান্নাতুল ফাতেমা। সরেজমিন গিয়ে জানা গেছে, নরসিংদী সদর উপজেলার চিনিশপুর ইউনিয়নের দাসপাড়ার একটি ভাড়া বাসায় থাকেন তারা। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী দম্পতি জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা জীবন শেষ করে চাকরির জন্য সরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে পরীক্ষা দিয়েছেন। অনেক ব্যাংকেও আবেদন করেছেন। কিন্তু ফলাফল শূন্য। তাদের ভাগ্যে চাকরি জুটেনি কোথাও। আলোহীন চোখ নিয়ে দুজনই দেশের খ্যাতনামা দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গন্ডি পার হলেও চাকরি না পাওয়ায় দ্বিতীয় দফায় অন্ধকার নেমে এসেছে তাদের জীবনে। চাকরির পেছনে ছুটতে ছুটতে দুজনেই এখন ক্লান্ত এ দম্পতির আবেদন শুধুমাত্র একটি চাকরির। যার সুবাদে তিনবেলা খেয়েপরে বেঁচে থাকতে পারেন, মানুষ করতে পারেন ছেলে-মেয়েক। সংসার জীবনে পা দেওয়ার শুরু থেকে আত্মীয় স্বজনের সহযোগিতায় কোনোমতে খেয়েপরে বেঁচে থাকলেও করোনার প্রাদুর্ভাবের পর দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে তাদের জীবন । কারণ স্বজনরাই এখন চলতে হিমশিম খাচ্ছেন। বর্তমানে অন্যের মুখাপেক্ষী দৃষ্টি প্রতিবন্ধী দম্পতির দিন কাটছে অর্ধাহারে-অনাহারে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী রফিকুল ইসলাম বলেন, এক সময় বাবার সহযোগিতায় জীবন চলতো। ২০১৫ সালে বাবা মারা যাওয়ার পর থেকে আমার অন্ধকার জীবনে অন্ধকার আরও প্রকট হয়ে ওঠে। ভাবতে হচ্ছে দু’মুঠো আহারের কথা, দুই সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা। যদি একটি চাকরির ব্যবস্থা হয় তাহলে ডাল-ভাত খেয়ে হয়তো সন্তান দুটিকে মানুষ করতে পারতাম। তা না হলে হয়তো অন্ধকার ভুবন অন্ধকারই থেকে যাবে। দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে রফিকুল বলেন, পিঠ এখন একেবারে দেয়ালে ঠেকে গেছে, আর পারছি না। যদি কোনও হৃদয়বান ব্যক্তি আমাদের সহযোগীতা করেন বা একটি কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেন, তা দিয়ে জীবন চলার একটা পথ হবে আমাদের। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী মীম বললেন, জীবনে কখনও ভাবিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেও চাকরি পাবো না। ২০১১ সাল থেকে আমরা দুজন সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য চেষ্টা করেই যাচ্ছি। এখন আমাদের জীবনটা খুব কষ্টে কাটছে। সংসার চালাতে মাসে কমপক্ষে ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা লাগে। কিন্তু আমাদের কোনও আয় নেই। মীম বলেন, এমন যদি কেউ আমাদের একটি কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়ে সাহায্য করতেন। তা না হলে দুই সন্তান নিয়ে মরতে হবে। এছাড়া কী আর করার আছে আমাদের? খাবার না পেলে মানুষ কতদিন বাঁচতে পারে?’ রফিকুল ইসলামের মা বৃদ্ধা জোবেদা খাতুন কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ছোট থেকে টাইফয়েড জ্বরে চোখের দৃষ্টি হারা ছেলেকে অনেক দু:খে-কষ্ট বড় করে পড়াশুনা করিয়েছি দেশের স্বনামধন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে। আশা ছিল একটি চাকরি পেলে নিজে চলতে পারবে। স্বামীহারা আমি এখন আমি নিঃস্ব। যে বয়সে মানুষ পরকালের চিন্তা করে সে বয়সেও আমি দৃষ্টিহারা সন্তান ও দৃষ্টি হারা ছেলে বউকে নিয়ে আছি। এটাই কি আল্লাহ আমার ভাগ্যে লিখেছিল। তাদের কি কোনও একটা চাকরির ব্যবস্থা হবে না। নরসিংদী সুইড বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ও অটিস্টিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. জসিম উদ্দিন সরকার বলেন, আমার দেখা এই উচ্চ শিক্ষিত দম্পতি তাদের দুই সন্তান নিয়ে খুব কষ্টে দিন কাটাচ্ছেন। তাই অসহায় এ দৃষ্টি প্রতিবন্ধী পরিবারটিকে বাঁচাতে সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলসহ সমাজের দানশীল ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানাই।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com
অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

Design & Developed by
  আত্রাইয়ে আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস পালিত   রৌমারীতে অনুমোদিত হাটের পক্ষে গণস্বাক্ষর ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত   রাঙ্গাবালিতে ছাগলে বীজ খাওয়াকে কেন্দ্র করে অন্তসত্তা সহ আহত দুই   জাতীয় শ্রমিকলীগ শরণখোলা উপজেলা শাখা শ্রমিকলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক তাইজুল ইসলামের মিরাজের শোক প্রকাশ   জাতীয় শ্রমিকলীগ শরণখোলা উপজেলা শাখা শ্রমিকলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক তাইজুল ইসলামের মিরাজের শোক প্রকাশ   কলাপাড়ায় শেখ হাসিনা’র জন্মদিন উপলক্ষে এম,বি কলেজ ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি।   উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত: পদ্মায় ডুবে যাওয়া ভাইবোনের হদিস মেলেনি   নওগাঁয় আবারও তৃতীয় দফায় বন্যায় নিন্মাঞ্চল প্লাবিত   নওগাঁর রাণীনগরে মোবাইল চুরির অপবাদে নির্যাতন ৷   পাবনা ভাংগুড়া পৌর মেয়র মোঃ গোলাম হাসনাইন রাসেলের শোক প্রকাশ   আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্মদিন   বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার জন্মদিন আজ   বরিশালে দুর্গাসাগর দীঘিতে বিভিন্ন প্রজাতির দেশীয় মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়   ঘোড়াঘাটে পানিবন্দি এলাকা পরিদর্শন করলেন -শিবলী সাদিক এমপি   অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের শোক   অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে ধীরেন্দ্র দেবনাথ এমপির শোক   ভোলার চরনোয়াবাদে জোরপূর্বক জমি দখলের অভিযোগ   এ্যাড. জাকিয়া তাবাস্সুম জুঁই এমপি’র বড় ভাই ডঃ রিজা শহীদের ইন্তেকালে আইনজীবী নেতৃবৃন্দের সমবেদনা   প্রবাসীর স্ত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ   বিমান বাহিনীর আকাশ প্রতিরক্ষা অনুশীলন ‘এডেক্স-২০২০-২’ অনুষ্ঠিত |