শুক্রবার ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   শুক্রবার ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ


বন্যার পানিতে ভেঙে হতাশায় পড়েছে মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষার্থীরা
প্রকাশ: ১৯ আগস্ট, ২০২০, ৮:৫২ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

বন্যার পানিতে ভেঙে হতাশায় পড়েছে মাদ্রাসার শিক্ষক শিক্ষার্থীরা
রাইসুল ইসলাম ফুল রাজিবপুর কুড়িগ্রামঃ অবশেষে ভেঙে গেল স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসাটি। চলতি বছরের তৃতীয় দফায় বয়ে যাওয়া ভয়াবহ বন্যার পানিতে উক্ত মাদ্রাসাটি গত ৯ আগস্ট ভেঙে যায়। এ ব্যাপারে মাদ্রাসাটি পূর্ণ মেরামতের দাবিতে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক কর্মচারীগণ রৌমারী উপজেলা নির্বাহি অফিসার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মাধ্যমিক কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত আবেদন দিয়েছেন। এর আগেও ঝুঁকিপূর্ণ টিনশেড ঘরে শিক্ষার্থীরা পড়ালেখা করে আসতো। এ নিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে সংবাদ ছাপা হলেও কার্যকরী কোনো ব্যবস্থা নেয়নি কর্তৃপক্ষ। দ্রুত মাদ্রাসাটি মেরামত করা না হলে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা করানোর সম্ভব হবে না। প্রসঙ্গত, কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার ফুলুয়ারচর ১৯৭৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ ৪৩ বছর শিক্ষার্থীদের মধ্যে আলো ছড়ালেও এখনো মাদ্রাসাটি এমপিও হয়নি। শিক্ষার বিনিময় শিক্ষক কর্মচারী পাননি কোন পারিশ্রমিক। অন্যদিকে কোন ভবন না থাকায় অসমাপ্ত একটি ঝুঁকিপূর্ণ টিনের ঘরে চলছিল নিয়মিত পাঠদান। ফলে একদিকে শিক্ষকরা যেমন মানবেতর জীবন যাপন করছেন অন্যদিকে শিক্ষার্থীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাঠ গ্রহণ করে আসতো। প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা যায়,১৯৭৭ সালে উপজেলার ফুলুয়ার চর এলাকার শিক্ষার আলো ছড়াতে প্রতিষ্টিত হয় ফুলুয়ার চর স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসাটি। শিক্ষকদের সহায়তায় মাদ্রাসায় একটি টিনের ঘর তৈরি করা হয়। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থী রয়েছে ১শ৬৭ জন। পাঁচজন শিক্ষক ও একজন কর্মচারী রয়েছে। প্রতিষ্ঠান ছিল দিগন্ত জোড়া মাঠ ও খোলামেলা পরিবেশ প্রধান শিক্ষকের দক্ষতা ও নিষ্ঠাবান শিক্ষকের কারণে ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় কয়েকবার ভালো ফলাফল করেছে। প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা এরকম সব ধরনের শর্ত পূরণ করা সত্ত্বেও প্রতিষ্ঠার দীর্ঘ ৪৩ বছর পরও মাদ্রাসাটি এমপিওভুক্ত হয়নি। ওই মাদ্রাসাটির প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম বীর মুক্তিযোদ্ধা ২০১৮ সালে বিনা বেতনে ও পেনশন বিহীন ভাবে অবসরে যান। এছাড়াও আরেক সহকারি শিক্ষক দেলোয়ার হোসেন বয়সের ভারে তিনি মারা গেছেন। শিক্ষক ও কর্মচারীরা জানান সংসারের হাল ধরতে এই প্রতিষ্ঠানে চাকরি নেন শিক্ষক কর্মচারীরা ভেবেছিলেন একদিন সুখের মুখ দেখবেন। কিন্তু চাকরি জীবনের বেশিরভাগ সময় অতিবাহিত হলেও সেই সুখের দেখা মেলেনি। একদিকে শিক্ষার্থীদের বেতন নেই অন্যদিকে এমপিওভুক্ত না হওয়ায় সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতা না পেয়ে তারা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তাছাড়া আগেও মাদ্রাসায় বর্ষার সময় একটু বৃষ্টি হলেই ঘরের ভেতরে পানি প্রবেশ করে। বেশি বৃষ্টি হলে পাঠ্য দান চালু রাখা খুবই কঠিন হয়ে পড়তো। এছাড়া ঘরগুলো মজবুত না হওয়ায় ঝড়ে উড়িয়ে নিয়ে যাওয়ার আশঙ্কাও ছিল। মাদ্রাসাটির পঞ্চম শ্রেণীর সুমাইয়া, শান্তি খাতুন, সুজন মিয়া, আশরাফুলসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন এর আগেও বৃষ্টির সময় অনেক সমস্যা হতো। সামান্য বৃষ্টি হলেই ঘরের ভেতরে পানি পড়ে বই-খাতা ভিজে যেতো। তার পরেও এবারের বন্যায় আমাদের মাদ্রাসার ঘরটি ভেঙে গেল তাড়াতাড়ি মেরামত না করলে আমাদের লেখাপড়া করা খুবই কষ্ট হবে। মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম জানান, অসমাপ্ত টিনের ঘরে ঝুঁকি নিয়ে মাদ্রাসার পাঠদান চালু রেখেছিলাম। মাঝে মাঝে শিক্ষকদের কিছু সহায়তায় পাঠদানের জন্য ঘর নির্মাণ করা হলেও দীর্ঘদিন ধরে টিনের চাল ন,বেড়া, জানালা অকেজু হয়েছিল টাকার অভাবে ঘরটি মেরামত করতে পারিনি। চালের টিনগুলো ফুটো হয়ে গেছে সর্বশেষ এবারের কয়েকদফা বন্যার পানিতে মাদ্রাসার ঘরটি ভেঙে গেছে। আমরা মাদ্রাসার ঘরটি মেরামতের জন্য বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন দিয়েছি আশাকরি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ মাদরাসাটির দিকে সুনজর দিবেন। অবসরে যাওয়া সাবেক প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম বীর মুক্তিযোদ্ধা তিনি জানালেন, প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান সভাপতি দায়িত্ব থেকে নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন দপ্তরে দিনের-পর-দিন ঘুরেও মাদ্রাসাটির কোন উন্নতি করতে পারেনি। তবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওর চূড়ান্ত সমাধান চান। এমপিও হলে প্রতিষ্ঠানটি বেঁচে থাকবে এই এলাকার গরিব ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা করার সুযোগ পাবে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এবিএম নকীবুল হাসান বলেন, এ বিষয়ে সমন্বয় সভায় আলোচনা করা হবে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহি অফিসার আল ইমরান জানান মাদ্রাসা মেরামতের ব্যাপারে আবেদন পেয়েছি এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com
অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

Design & Developed by
  জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি মোকাবেলায় সুবিচারের দাবিতে ভোলার চরফ্যাশনে তরুনদের অবোরধ কর্মসূচি   এখন সময় অর্থনৈতিক কূটনীতির, রাজনৈতিক নয় | প্রধানমন্ত্রী   ১ অক্টোবর থেকে ওমান যেতে পারবেন প্রবাসীরা | পররাষ্ট্রমন্ত্রী   ২০৩০ সালের মধ্যে সব মাধ্যমিক বিদ্যালয় ডিজিটাল হবে |   যুক্তরাষ্ট্রকে সিংহের লেজ নিয়ে নাড়াচাড়া না করতে হুঁশিয়ারি ইরানের |   ডিজিটাল সহযোগিতায় শক্তিশালী বৈশ্বিক অংশীদারিত্বের ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ   জুটি বাঁধলেন সাইমন-সুস্মি   প্রীতিলতার চরিত্রে তিশা   বরিশাল নগরীতে স্কুলপড়ুয়ার ঘুসিতে প্রাণ গেল গাড়িচালকের   ‘শিক্ষার্থীদের মেধা মূল্যায়ন করেই অন্য ক্লাসে উত্তীর্ণ করা হবে’   ২০২১ সালের ডিসেম্বরেই পদ্মা সেতু খুলে দেওয়া হবে: রেলমন্ত্রী   রাণীনগরে পুলিশ পাহারায় বিএনপির বর্ধিত সভা অনুষ্ঠান   নওগাঁয় ইসলামিক আন্দোলন এর দাবি অবিলম্বে মদের বার স্থাপন বন্ধ৷   শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ১৫ দিন পর এইচএসসি পরীক্ষা |   পুঁজিবাজারকে চাঙ্গা করতে বিশেষ তহবিলে সুদহার কমিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক |   “বরিশাল হবে অসামাজিক কার্যকলাপ ও মাদক মুক্ত শহর। “বিএমপি কমিশনার।   করোনা প্রতিরোধে আতঙ্ক নয়, সচেতনতাই মুখ্য | তাপস   করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় আমতলীতে সচেতনতা সভা।   মসজিদে বিস্ফোরণ, ৫ লাখ টাকা করে আর্থিক সহায়তা | প্রধানমন্ত্রী   ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ক্ষতিগ্রস্ত বরগুনার ঢলুয়ায় ৮শ’ পরিবারকে মানবিক সহায়তা প্রদান করেছে জাগোনারী