বৃহস্পতিবার ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৯ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
ই-পেপার   বৃহস্পতিবার ২২শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পটুয়াখালী জেলায় অনেক কিছু হলেও হয়নি গুরুত্বপূর্ন অনেক বেড়িবাঁধ
প্রকাশ: ১৬ নভেম্বর, ২০২০, ১:২৩ অপরাহ্ণ |
অনলাইন সংস্করণ

পটুয়াখালী জেলায় অনেক কিছু হলেও হয়নি গুরুত্বপূর্ন অনেক বেড়িবাঁধ

মোঃ সাইদুর রহমান বাউফল প্রতিনিধি :

১৩ বছর আগে ২০০৭ সালের ১৫ নভেম্বর রাতে দেশের দক্ষিণ উপকূলে আঘাত হানে ভয়াবহ প্রলয়ংকারী ঘূর্ণিঝড় সিডর। সেদিন ঘণ্টায় ২৬০ কিলোমিটার বেগে বাতাসের সঙ্গে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ১০ থেকে ১২ ফুট উচ্চতার পানি আঘাত হেনেছিল দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি জেলায়।

মাত্র আধা ঘণ্টার তাণ্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে যায় উপকূলের প্রান্তিক জনপদ। তীব্র ঝড় আর জলোচ্ছ্বাস কেড়ে নেয় উপকূলে বসবাসকারী জনগোষ্ঠির বাড়ি-ঘর, গাছপালা, গৃহপালিত হাঁস-মুরগি, গরু-ছাগলসহ শত শত মানুষের তাজা প্রাণ। ওই দিনের ভয়াবহতা মনে পড়লে এখনও আঁতকে ওঠেন উপকূলবাসী।

১৫ নভেম্বর রাতে পটুয়াখালীর মহিপুর ইউনিয়নের নিজামপুর বেড়িবাঁধ ভেঙে পানি ঢুকে চেনা জনপদ মুহূর্তে পরিণত হয় অচেনা এক ধ্বংসস্তূপে।

১৩ বছরে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। মহিপুর ইউনিয়নটি এখন মহিপুর থানা হয়েছে। এ জনপদের নেতারা এমপি হয়েছেন। দায়িত্ব পালন করেছেন পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর। ভাঙা বেড়িবাঁধ পরিদর্শন করেছেন বেশ কয়েকবার।

এছাড়া সরকারি-বেসরকারি, দেশি-বিদেশি অনেক প্রতিষ্ঠান কতবার পরিদর্শন করেছেন তার হিসাব দিতে পারবেন না বসবাসকারীরা। কিন্তু সেই ভাঙা বেড়িবাঁধের টেকসই উন্নয়ন হয়নি এখনও। বছরের পর বছর জোড়াতালি দেয়া হচ্ছে। যা বর্ষা মৌসুমে ভেঙে পানি প্রবেশ করে বাড়ি-ঘর তলিয়ে যায়। শত শত একর ফসলি জমিও নষ্ট হয়ে গেছে।

প্রকৃত কৃষকরা চাষের জমি হারিয়ে এখন জেলে পেশায় নিয়োজিত। জোয়ার-ভাটার সঙ্গে যুদ্ধ করতে করতে ক্লান্ত হয়ে অন্যত্র চলে গেছে বেশ কিছু পরিবার।

সরেজমিনে গেলে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে কথাও বলতে চায় না তারা। তাদের ভাষ্য ‘সাংবাদিক আয় ছবি তোলে, ভিডিও করে। মোগো ভাগ্যের তো পরিবর্তন হয় না।’

প্রলয়ংকারী সিডরের ১৩ বছর পার হলেও সেরাতের ভয়াল দৃশ্য আজও তাড়িয়ে বেড়ায় নিজামপুরবাসীকে।

সিডরের ১৩ বছর অতিবাহিত হলেও আন্ধারমানিক নদীর মোহনার তীরবর্তী এলাকায় বিধ্বস্ত বেড়িবাঁধ নির্মাণ না হওয়ায় এখনও দুর্যোগ ঝুঁকিতে দিন পার করছে শত শত পরিবার। হতদরিদ্র পরিবারগুলো সিডরের ধকল কাটিয়ে উঠতে পারেনি ১৩ বছরেও।

নিজামপুর এলাকার বাসিন্দা আব্দুল মজিদ হাওলাদার সেদিনের কথা মনে করে বলেন, ‘সিডরের কথা মনে পড়লে এখনও আঁতকে উঠি। আমাদের দাবি ছিল এই এলাকায় একটি টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের।’

এদিকে কলাপাড়া উপজেলার ধুলাসার, মহিপুর, চম্পাপুর ও লালুয়া ইউনিয়নের প্রায় ১০ কিলোমিটার বাঁধ অরক্ষিত থাকায় বেড়িবাঁধের বাইরে বসবাস করা পরিবারগুলো রয়েছে এখনও ঝুঁকিতে।

সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে, ২০০৭ সালের সিডরে কলাপাড়া উপজেলায় ৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে এক হাজার ৭৮ জন। নিখোঁজ রয়েছে সাত জেলে। উপজেলায় গবাদিপশু মারা গেছে চার হাজার ৯৪৪টি। ক্ষতি হয়েছে ৫৫৩টি নৌযানের।

বিধ্বস্ত বেড়িবাঁধ নির্মাণ না হওয়ায় কলাপাড়ার ধুলাসার, লালুয়া, মহিপুর, লতাচাপলী ও চম্পাপুর ইউনিয়নে বেড়িবাঁধের বাইরে সাগর ও নদীর তীরঘেঁষে প্রায় তিন হাজার পরিবার বসবাস করছে চরম ঝুঁকি নিয়ে।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী খান মোহাম্মদ ওয়ালিউজ্জামান বলেন, দ্রুত বিধ্বস্ত বেড়িবাঁধ নির্মাণে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।




এই ক্যাটেগরির আরো সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

পুরোন সংবাদ খুজুন
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  

সর্বাধিক পঠিত

প্রকাশক: সৈয়দ এমরান আলী রিপন

সম্পাদক: রোমান চৌধুরী

মোবাইলঃ ০১৭১১৯৫৭২৬৩ / 09639298200

অফিস : সৈয়দ মহল, জানুকি সিং রোড,কাউনিয়া,বরিশাল

ই-মেইলঃ barisalpress247@gmail.com

Design & Developed by
  নবাবগঞ্জে লকডাউন বাস্তবায়নে মাঠে উপজেলা প্রশাসন   নবাবগঞ্জের ডাংশের ঘাটের জামে মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তরের উদ্বোধন করলেন- শিবলী সাদিক এমপি   বরিশাল সাংবাদিক ক্লাব’র আত্মপ্রকাশ: আহ্বায়ক-গিয়াস উদ্দিন সুমন, সদস্য সচিব-মুজিব ফয়সাল   সাংবাদিকদের সহায়তায় দ্বিতীয় দিনেও ছিন্নমূলদের মাঝে খাবার বিতরণ অব্যাহত   টাকার লোভ দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে   জাতিসংঘের তিন সংস্থার নির্বাহী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশ   ক্লাউড পিসি সেবা আনছে মাইক্রোসফট   খেতাব বর্জন করেছেন ‘মিসেস ওয়ার্ল্ড ২০২০’ বিজয়ী   এবার জনপ্রতি ফিতরা সর্বনিম্ন ৭০, সর্বোচ্চ ২৩১০ টাকা   প্রথম দিনে অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটে যাত্রী কম, কাল থেকে বাড়ার সম্ভাবনা   বরিশালে ঝড়বৃষ্টিসহ কালবৈশাখীর আশঙ্কা!   বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের স্টাফদের জন্য ৩টি বাস দিলেন বিসিসি মেয়র   অবশেষে রাজশাহীতে স্বস্তির বৃষ্টি   করোনা ও ডায়রিয়ায় মানষের পাশে বেতাগী যুব রেডক্রিসেন্ট   ভালো আছেন খালেদা জিয়া, শরীরে জ্বর নেই   কলাপাড়ায় ব্যবসায়ী ও ড্রাইভারকে অর্থদন্ড   রাজশাহী বিভাগে ১ দিনে সর্বোচ্চ ৮ জনের মৃত্যুর রেকর্ড, শনাক্ত ১৮০   বরিশালে ডায়রিয়ায় একদিনে ২ জনের মৃত্যু   ভাসানচরে অর্থায়নের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে দাতাদের সাথে আলোচনার পর!   ময়মনসিংহে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরে থাকছেন না অনেক পরিবার
error: কপি করা থেকে বিরত থাকুন !!